ঢাকা, মঙ্গলবার ২৫ই জুন ২০২৪ , বাংলা - 

সিট বাণিজ্য ছাত্রলীগের কাজ নয়:সাদ্দাম

জেলা প্রতিনিধি।। ঢাকাপ্রেস২৪.কম

2023-09-18, 12.00 AM
সিট বাণিজ্য ছাত্রলীগের কাজ নয়:সাদ্দাম

সরকার পদত্যাগের এক দফা দাবিতে ৫টি রোডমার্চসহ টানা ১৫দিনের কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বিএনপি। ১৯ সেপ্টেম্বর থেকে ৩ সেপ্টেম্বর থেকে এই কর্মসূচি হবে।সোমবার দুপুরে গুলশানে চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপি মহাসচিব এই কর্মসূচি ঘোষণা করেন।তিনি বলেন, ‘‘ সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বাতিল, নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের একদফা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আমরা আন্দোলন শুরু করেছি। আমরাসহ আমাদের অনেক রাজনৈতিক জোট ও দল যুগপত আন্দোলনের সফল করার লক্ষ্যে আমরা কতগুলো কর্মসূচি হাতে নিয়েছি।”অসুস্থতার কারণে মহাসচিবের অনুরোধে কর্মসূচি পড়ে শুনান দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান।

পাঁচটি রোড মার্চ হচ্ছে: ২১ সেপ্টেম্বর ভৈরব থেকে সিলেট(সিলেট বিভাগ), ২৩ সেপ্টেম্বর বরিশাল থেকে পটুয়াখালী(বরিশাল বিভাগ), ২৬ সেপ্টেম্বর খুলনা বিভাগ, ১ অক্টোবর ময়মনসিংহ থেকে কিশোরগঞ্জ(ময়মনসিংহ বিভাগ)এবং ৩ অক্টোবর কুমিল্লা থেকে চট্টগ্রাম(কুমিল্লা ও চট্টগ্রাম বিভাগ)।

 

ঢাকায় হবে সমাবেশ। এগুলো হচ্ছে: ১৯ সেপ্টেম্বর জিঞ্জিরা/কেরানিগঞ্জ গাজীপুরের টঙ্গি, ২২ সেপ্টেম্বর যাত্রাবাড়ী, উত্তরা, ২৫ সেপ্টেম্বর নয়াবাজার, আমিনবাজার, ২৭ সেপ্টেম্বর গাবতলী এবং  নারায়নগঞ্জের ফতুল্লায় সমাবেশ।

 

ঢাকায় ২৯ সেপ্টেম্বর মহিলা সমাবেশ, ৩০ সেপ্টেম্বর শ্রমজীবী সমাবেশ এবং ২ অক্টোবর কৃষক সমাবেশ হবে।

 

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘‘ আমাদের যুগপত আন্দোলনে জোট ও দলগুলো আছে তারা নিজেরা নিজেদের অবস্থান থেকে কর্মসূচি ঘোষণা করবেন। যতগুলো তারা তাদের মতো করতে করতে পারবেন সেটা তারা সিদ্ধান্ত নিয়ে ঘোষণা করবেন।”

 

‘‘ তারা হয়ত সবগুলো করবেন না। তারা তাদের মতো করে করবেন।”

 

সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আবদুল মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, কেন্দ্রীয় নেতা খায়রুল কবির খোকন, ফজলুল হক মিলন, শহিদ উদ্দিন চৌধুরী এ্যানি, তাইফুল ইসলাম টিপু, কৃষক দলের হাসান জাফির তুহিন ও শহিদুল ইসলাম বাবুল প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন।

 

ইতিমধ্যে জাতীয়তাবাদী যুব দল, স্বেচ্ছাসেবক দল ও ছাত্র দল যৌথভাবে গত ১৬ ও ১৭ সেপ্টেম্বর রংপুর ও রাজশাহী বিভাগে তারুণের‌্য রোড মার্চ করেছে। এই কর্মসূচিতে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর প্রধান অতিথি হিসেবে অংশ নেন।

 

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পদত্যাগ, সংসদ বাতিল, নির্দলীয নিরপেক্ষ সরকারের হাতে ক্ষমতা হস্তান্তর, নতুন নির্বাচন কমিশন গঠনের ‘এক দফা’ দাবিতে গত ১২ জুলাই বিএনপি, গণতন্ত্র মঞ্চ, ১২ দলীয় জোট, সমমনা জাতীয়তাবাদী জোট, গণতান্ত্রিক বাম ঐক্য, এলডিপি, গণফোরাম, পিপলস পার্টি, এনডিএম ও লেবার পার্টি যুগপত আন্দোলনে কর্মসূচি নিয়ে মাঠে নামে। এই পর্যন্ত যুগপতভাবে তারা ঢাকায় মহাসমাবেশ, ঢাকার প্রবেশ পথে অবস্থান, গণমিছিল, কালো পতাকা মিছিল, পদযাত্রা প্রভৃতি কর্মসূচি দেয়। সর্বশেষ গত ১৪ সেপ্টেম্বর ঢাকায় সমাবেশ/ ৮ সেপ্টেমর ঢাকায় গনমিছিল করে বিএনপিসহ সমমনা জোটগুলো।