ঢাকা, বুধবার ২৫শে নভেম্বর ২০২০ , বাংলা - 

সুশান্তের প্রেম থেকে সরে আসতে বাধ্য হন সারা

ডেস্ক নিউজ।।ঢাকাপ্রেস২৪.কম

বৃহঃস্পতিবার ২০শে আগস্ট ২০২০ বিকাল ০৩:২১:৪০

সুশান্তের টিমের প্রাক্তন সদস্য স্যামুয়েল হওকিপ ইনস্টাগ্রামে মুখ খুললেন সুশান্ত আর সারা আলি খানের প্রেম নিয়ে। সুশান্তের ঘনিষ্ঠ বন্ধু হিসেবে ইনস্টায় পোস্ট করেন স্যামুয়েল, “আমার মনে আছে ‘কেদারনাথ’ ছবির প্রোমোশনের কথা। সুশান্ত আর সারা তখন প্রেমে হাবুডুবু খাচ্ছে।ওদের আলাদা করা যায় না, ওদের সম্পর্কে একটা শিশুসুলভ পবিত্র ব্যাপার ছিল।

ওদের দু’জনের পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধা চোখে পড়ার মতো। যা আজকাল কোনও সম্পর্কে দেখা যায় না।”‘কেদারনাথ’ ছবির সময় সুশান্ত আর সারার প্রেম নিয়ে কিছু কথা ইন্ডাস্ট্রির মধ্যে চাউর হলেও সারা বা সুশান্ত দু’জনেই তা গুজব বলে উড়িয়ে দেন। কিন্তু আজ স্যামুয়েলের ইনস্টা তাঁদের গভীর প্রেমের সম্পর্কের কথা প্রথম সামনে আনল।

স্যামুয়েল এখানেই থেমে থাকেননি। তাঁর বক্তব্য থেকে প্রকাশ্যে এসেছে আরও ভয়ঙ্কর তথ্য। তিনি বলেছেন, “সারা শুধু সুশান্ত নয়, সুশান্তের পরিবার, বন্ধু, এমনকি তাঁর স্টাফেদের প্রতিও শ্রদ্ধাশীল ছিল।আমি অবাক হয়েছি সারা যখন এই সম্পর্ক ভেঙে চলে আসে। আমার মনে হয় বলিউড মাফিয়ারাই সুশান্তের সঙ্গে সম্পর্ক ভাঙতে বাধ্য করেছিলসারাকে।”সুশান্তকে দীর্ঘ দিন ধরে চিনতেন স্যামুয়েল। 

এর আগে মুম্বই সংবাদমাধ্যমকে তিনি জানিয়েছিলেন, রিয়া চক্রবর্তীর জন্যই সুশান্তের দিদি প্রিয়ঙ্কার সঙ্গে সুশান্তের ঝামেলা হয়। তিনি বলেন, “প্রিয়ঙ্কাদিদি আর সুশান্তের মধ্যে যে দিন ঝগড়া হয় সে দিন ওদের কথা শুনে বুঝেছিলাম কোনও তৃতীয় ব্যক্তির জন্যই ওদের মধ্যে ভুল বোঝাবুঝি হচ্ছে। তবে আমি নিজে থেকে কাউকে কিছু জিগ্যেস করিনি,ভেবেছি ওদের পারিবারিক ব্যাপার। তবে দিদি, রিয়া— সব মিলিয়ে সুশান্ত নাজেহাল হয়ে গিয়েছিল।”

শুধু রিয়া নয়সিদ্ধার্থ পিঠানি নিয়েও সাফ কথা বলেছিলেন স্যামুয়েল। তিনি জানান, সিদ্ধার্থ পিঠানি তাঁর থেকেও বেশি রিয়ার ঘনিষ্ঠ। সুশান্তের মৃত্যুর পরই বলা হয়েছিল, রিয়া নাকি সিদ্ধার্থ পিঠানিকে পছন্দ করেন না। তবে এখন উঠে এসেছে অন্য তথ্য।