ঢাকা, শুক্রবার ২৭শে নভেম্বর ২০২০ , বাংলা - 

এ বার ভারতে সাইবার হানার চিনা ছক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক।।ঢাকাপ্রেস২৪.কম

রবিবার ২১শে জুন ২০২০ সন্ধ্যা ০৭:৩৫:১৭

লাদাখে প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখা লঙ্ঘনের পরে এ বার ছক সাইবার হানাদারির। সাইবার নজরদারি সংস্থা (সাইবার সিকিওরিটি ভেন্ডর) ‘সাইফার্মা’কে উদ্ধৃত করে রবিবার প্রকাশিত একটি খবরে দাবি, চিনের পিপলস লিবারেশন আর্মির মদতে পুষ্ট অন্তত দু’টি হ্যাকার-গোষ্ঠী ভারতের বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি সংস্থা ও সংবাদমাধ্যমের ওয়েবসাইটে হানা দেওয়ার পরিকল্পনা করেছে। চিনা সাইবার হামলা ঠেকাতে ভারতের তরফে দ্রুত সতকর্তা প্রয়োজন বলে প্রকাশিত খবরে জানানো হয়েছে।

চিন সেনার মদতে পুষ্ট ‘গথিক পান্ডা’ এবং ‘স্টোন পান্ড’ গোষ্ঠীর হ্যাকাররা ভারতে সাইবার হামলার জন্য সক্রিয় হয়েছে বলে ‘সাইফার্মা’র চেয়ারম্যান এবং সিইও কুমার রীতেশ এ দিন জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘‘চিন সেনার প্রত্যক্ষ নিয়ন্ত্রণে থাকা ওই দু’টি সংস্থার হ্যাকারেরা আগেও বিভিন্ন দেশে সাইবার হামলা চালিয়েছে।’’

কী ভাবে হতে পারে হামলা?

সাইবার বিশেষজ্ঞদের একাংশের আশঙ্কা, বর্তমান পরিস্থিতিতে কোভিড-১৯ প্রতিরোধ সংক্রান্ত কোনও ই-মেল বার্তার ‘ছদ্মবেশে’ আসতে পারে চিনা হ্যাকারদের ‘সাইবার ফাঁদ’। ডার্ক ওয়েব পদ্ধতিতে হতে পারে হামলা। ফলে হ্যাকারদের আইপি অ্যাড্রেস সহজে চিহ্নিত করা যাবে না। তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের একাংশ জানিয়েছেন, ‘টর’ নামে একটি বিশেষ ব্রাউজার এ ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়। চিনা অ্যাপ এবং চিনের সোশ্যাল মিডিয়া প্ল্যাটফর্মগুলি সম্পর্কেও ‘বিশেষ সতর্কতা’ নেওয়া প্রয়োজন বলে তাঁদের মত।

গত শতাব্দীর নব্বইয়ের দশক থেকেই ‘সাইবার স্পেস ডকট্রিন’-এর কাজ শুরু করেছিল বেজিং। চিনা সেনার আধুনিকীকরণের অন্যতম অংশ ছিল ওই পদক্ষেপ। আন্তর্জাতিক সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক সংস্থা ঘোস্টনেটের একটি রিপোর্টে দাবি, নিজেদের সাইবার নিরাপত্তা জোরদার করার পাশাপাশি চিনা ফৌজ অন্য দেশে সাইবার হামলার চালানোর উদ্দেশ্যে দক্ষ হ্যাকারদের টিম গড়ার কাজ শুরু করে সে সময় থেকেই।