ঢাকা, সোমবার ১৬ই সেপ্টেম্বর ২০১৯ , বাংলা - 

তিন জনকে পিটিয়ে খুন উত্তেজিত জনতার

ষ্টাফরিপোর্টার।।ঢাকাপ্রেস২৪.কম

শুক্রবার ১৯শে জুলাই ২০১৯ বিকাল ০৫:৩৫:১৬

গো-রক্ষার নামে দেশ জুড়ে স্বঘোষিত গোরক্ষকদের হুজ্জতি অব্যাহত। তার মধ্যেই এ বার নৃশংস হত্যাকাণ্ডের সাক্ষী থাকল বিহার। সেখানে একটি গ্রামে গরু চোর সন্দেহে তিন ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারল উত্তেজিত জনতা।

শুক্রবার ভোরে বিহারের সারণ জেলার বানিয়াপুর গ্রামে ঘটনাটি ঘটেছে। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোরের আলো ফোটেনি তখনও। সেইসময় এলাকায় পিকআপ ট্রাক-সহ তিন ব্যক্তির উপর নজর পড়ে স্থানীয় মানুষের।

ওই ট্রাকে একটি বাছুর ছিল বলে অভিযোগ। তা দেখে সন্দেহ জাগে স্থানীয়দের মনে। বাছুর চুরি করে পাচার করা হচ্ছে বলে ধারণা জন্মায়। আর তাতেই দলবল, লাঠিসোটা সমেত ওই তিনজনের উপর চড়াও হয় একদল উত্তেজিত মানুষ। তাদের বেধড়ক মারধর করা হয়।

নৃশংস অত্যাচার সইতে না পেরে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে যান ওই তিন জন। সেই অবস্থায় ছাপরা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁদের মৃত বলে ঘোষণা করেন।

নিহত তিনজন বানিয়াপুর সংলগ্ন আর একটি গ্রামের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। পুলিশের দাবি, সম্প্রতি সেখানে বাছুর চুরির ঘটনা ঘটেছে। তাই ওই তিন জনকে দেখে রাগ সামলাতে পারেননি গ্রামবাসীরা।

তবে নিহতদের পরিবারের লোকজন ইতিমধ্যেই থানায় গিয়েছেন। বানিয়াপুরবাসীদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করেছেন তাঁরা। তার ভিত্তিতে এখনও পর্যন্ত তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। অন্য দিকে, গরু চুরির অভিযোগে জানিয়ে মামলা দায়ের করেছে গ্রামবাসীরাও। নিহতদের আগে কখনও অপরাধমূলক কাজকর্মে জড়িয়েছিল কিনা তা খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

এর আগে, গত ২ জুলাই ত্রিপুরার ঢালাই জেলার রাইশ্যাবাড়ি গ্রামে গরু চোর সন্দেহে বুধিকুমার নামের এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে মারে উত্তেজিত জনতা।