ঢাকা, সোমবার ২৭শে মে ২০১৯ , বাংলা - 

ছাত্রলীগের কমিটি ভেঙে দিন

ষ্টাফরিপোর্টার।।ঢাকাপ্রেস২৪.কম

মঙ্গলবার ১৪ই মে ২০১৯ দুপুর ০২:১৬:৪০

ছাত্রলীগের নবগঠিত পূর্ণাঙ্গ কমিটি ভেঙে দিয়ে অধিক তদন্তের মাধ্যমে অর্থবহ কমিটি গঠনের দাবি জানিয়েছে ছাত্রলীগের পদবঞ্চিতরা। এজন্য ৪৮ ঘণ্টার সময় বেঁধে দিয়েছে তারা।মঙ্গলবার (১৪ মে) দুপুর দেড়টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মধুর ক্যান্টিনে সংবাদ সম্মেলন থেকে এ দাবি জানান শামসুন নাহার হল শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক নিপু তন্বী।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে বিগত কমিটির প্রচার সম্পাদক সাইফ বাবু বলেন, বিগত সময়গুলোতে যারা সক্রিয়ভাবে ছাত্রলীগের সঙ্গে জড়িত ছিলো তাদের একটি বৃহৎ অংশকে বাদ কিংবা সঠিক মূল্যায়ন না করে ছাত্রলীগে নিস্ক্রিয়, সাবেক চাকরিজীবী, বিবাহিত, অছাত্র, গঠনতন্ত্রের অধিক বয়স্ক, বিভিন্ন মামলার আসামি, মাদকসেবী, মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন অপকর্মের দায়ে আজীবন বহিষ্কৃতসহ নানা অভিযোগে অভিযুক্ত ব্যক্তিদের পদায়ন করা হয়েছে। এমন ব্যক্তিদের পদায়ন দেখে ছাত্রলীগের একজন নিবেদিত প্রাণকর্মী হিসেবে আমাদের ব্যথিত করেছে।

সাইফ বাবু বলেন, সোমবার পদবঞ্চিতরা সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছিলো সেখানেও দেশিয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে হামলা চালিয়ে বেশ কয়েকজনকে জখম করা হয়েছে। আমার সুষ্ঠু তদন্তের মাধ্যমে অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক বিচারের দাবি জানাই।

এর আগে সোমবার (১৩ মে) বাংলাদেশ ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা ঘিরে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে মধুর ক্যান্টিনে পদবঞ্চিতদের সংবাদ সম্মেলনে হামলা করেছেন পদপ্রাপ্তরা। এতে অন্তত ১০ জন আহত হয়েছেন, তাদের মধ্যে কয়েকজন অনেক বেশি রক্তাক্ত হয়েছেন। আহতদের ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

পদবঞ্চিতদের অভিযোগ, নতুন কমিটির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আরিফুজ্জামান আল ইমরানের নেতৃত্বে তাদের ওপর হামলা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে আরিফুজ্জামান আল ইমরান বলেন, বিকেলের ঘটনার সময় আমি ছিলাম না। যখন গিয়েছি তখন হাতাহাতি শেষ। সন্ধ্যায় পদবঞ্চিতরা সংবাদ সম্মেলনে করছিল, তখন আমরা পলিটিক্যাল চেয়ারে বসে ছিলাম। তখন দুই পক্ষই পাল্টাপাল্টি স্লোগান দেয়। অতি উৎসাহী জুনিয়ররা ব্যানার ছিঁড়তে গিয়ে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। আমরা সিনিয়ররা গিয়ে থামানোর চেষ্টা করি। এ অভিযোগ ভিত্তিহীন।