ঢাকা, সোমবার ২৭শে মে ২০১৯ , বাংলা - 

আরো ৯দিন সেবা দেবে এনবিআর

ষ্টাফরিপোর্টার।।ঢাকাপ্রেস২৪.কম

বৃহঃস্পতিবার ২২শে নভেম্বর ২০১৮ সকাল ০৭:২১:২৭

হয়রানি-ঘুষ এমনকি কোনো রকম ঝামেলা ছাড়াই সহজে কর দিতে আয়কর মেলার মতো পরিবেশে করদাতা ও সেবাগ্রহণকারীদের আরো ৯দিন সেবা দেবে জাতীয় রাজস্ব র্বোড(এনবিআর)।রোববার (২২ নভেম্বর) থেকে আগামী ২ ডিসেম্বর পর‌্যন্ত এনবিআরের ঢাকাসহ সব অফিসের কর্মকর্তারা আয়কর রিটার্ন পরিশোধে সব ধরনের সহযোগিতা করবে।

তবে মেলার মতই এক ছাদের নিচে ব্যাংকে টাকা পরিশোধের ব্যবস্থা কিংবা কর পরিশোধের পর কোনো উপহার দেওয়া হচ্ছে না।কিন্তু রিটার্ন সংক্রান্ত সব ধরনের কাগজপত্র, অনলাইনে রিটার্ন জমা, ই-টিআইএন রেজিস্টেশন করাসহ সব ধরনের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে কর্মকর্তাদের।

করের আওতা বৃদ্ধি এবং তরুণ করদাতাদের উৎসাহিত করতে এ উদ্যোগ নিয়েছে এনবিআর। কর দেওয়ার নির্ধারিত সময় চলতি ৩০ নভেম্বর শুক্রবার পর‌্যন্ত। কিন্তু ৩০ নভেম্বর শুক্রবার হওয়ায় আরো ২দিন সময় বাড়িয়ে সপ্তাহের প্রথম কার‌্যদিবস বোরবার পর‌্যন্ত রিটার্ন দেওয়ার সময় বাড়িয়েছে এনবিআর।

আর এ সময়ে আয়কর মেলার মতোই করদাতা এবং সেবাগ্রহণকারীদের সব ধরনের তথ্য দিয়ে সহযোগিতা করবে কর্মকর্তারা।এ বিষয়ে এনবিআর চেয়ারম্যান মোশাররফ হোসেন ভূঁইয়া বলেন, আয়কর মেলা শেষ হলেও ২২ নভেম্বর থেকে ৩০ নভেম্বর ২০১৮ পর্যন্ত এনবিআরের কর অফিসগুলোতে মেলার পরিবেশে করদাতা ও সেবাগ্রহণকারীদের সেবা দেওয়া হবে।

মেলার পরিবেশেই করদাতারা রিটার্ন দাখিল করতে পারবেন। রিটার্ন জমা নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনো কর্মকর্তা কর্মচারীর গাফিলতি সহ্য করা হবে না।উল্লখ্য, ‘উন্নয়ন ও উত্তরণ, আয়করের অর্জন’ স্লোগানে গত ১৩ থেকে ১৯ নভেম্বর পষর্ন্ত রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবসহ সারাদেশে আয়কর মেলা ২০১৮ অনুষ্ঠিত হয়েছে। এনবিআর কর্তৃপক্ষের দাবি করদাতাদের ব্যাপক সাড়া পড়েছে। উৎসবমুখর পরিবেশে মেলা শেষ হওয়ায় ২ হাজার ৪৬৮ কোটি ৯৪ লাখ ৪০ হাজার ৮৯৫ টাকার কর সংগ্রহের নতুন রেকর্ড গড়েছে।

এবারের মেলায় ১৬ লাখ ৩৬ হাজার ২৬৬ জন সেবাগ্রহণ করেছে। এসময়ে রির্টান দাখিল করেছেন ৪ লাখ ৮৭ হাজার ৫৭৩ জন করদাতা এবং নতুন ইটিআইএন রেজিস্ট্রেশন করেছেন ৩৯ হাজার ৭৪৩ জন।এছাড়াও সারাদেশে অনলাইনে রিটার্ন দাখিল করেছেন ৩ হাজার ৭৭০ জন করদাতা এবং ই- পেমেন্টের মাধ্যমে ১ হাজার ১৬০ জন করদাতা ১ কোটি ৪৮ হাজার ৬৮৫ টাকা আয়কর দিয়েছেন। মেলার কর শিক্ষণ ফোরামে ব্যাপক সাড়া পড়েছে।