ঢাকা, বুধবার ২৬শে জুন ২০১৯ , বাংলা - 

মতামত / অতিথি কলাম

তবু প্রেম বেঁচে থাক অনন্তকাল ........

১৮৩৩ সাল পোল্যান্ডের পরমা সুন্দরী। ধনীকন্যা। উপযাচক হয়ে প্রেম নিবেদন করেন ভবঘুরে এক তরুণের প্রতি। অনেকটাই দারিদ্যতায়পিষ্ট। সাড়া মিললো। দুজনের মাঝে প্রেমপত্র চালাচালিতে বছর গড়ালো। প্রেমিকা তরুণীটি ধনীকন্যা। তাঁর পক্ষ থেকে প্রস্তাব আসলো বিয়ের। প্রস্তাবে সম্মত হবার কি আছে, প্রেমিক মন থমকে গেলো। মাথা হেঁট করে বউয়ের বাড়িতে গিয়ে ওঠা? তাঁর পক্ষে সম্ভব কি করে? পত্রযোগে বিয়ের জন্য কয়েক বছর অপেক্ষা করতে বললেন প্রিয়তমাকে। এতে ছন্দহারা হলো দুজনের পথচলায়। বন্ধ হলো চেখাচোখি। দেখাদেখি। এমনকি পত্রচালাচালি। কিন্তু মায়াপ্রদীপ্ত প্রাণ কি করে রং বদলায়? এ দুজনের মধ্যকার বিরতিটা বিরক্তের হয়ে একদিন কষ্টে পরিণত হলো।